৪৫তম বিসিএসে নন-ক্যাডারে আবেদনে সমস্যা

৪৫তম বিসিএসে নন-ক্যাডারে আবেদনে সমস্যা

৪৫তম বিসিএসের আবেদনের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এবারই প্রথমবারের মতো ক্যাডার পদের পাশাপাশি নন-ক্যাডার পদের সংখ্যা উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে পিএসসি। আবেদনের সময় ক্যাডার পদে যেমন পছন্দ নির্দিষ্ট করে দেওয়া যায়, তেমনই নন-ক্যাডার পদেও পছন্দের তালিকা নির্দিষ্ট করে দিতে পারবেন প্রার্থীরা। তবে নন-ক্যাডার পদে আবেদন করতে গিয়ে কিছু সমস্যায় পড়েছেন প্রার্থীরা।

আবেদনকারী কয়েকজন প্রার্থী প্রথম আলোকে বলেন, নন-ক্যাডারে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বাছাই করার সময় শুধু নারী প্রার্থীদের অপশন রাখা হয়েছে। পুরুষ প্রার্থীদের জন্য অপশন নেই। বিজ্ঞপ্তিতে এ বিষয়ে কোনো নির্দেশনা নেই। তাই এই পদ শুধু নারী প্রার্থীদের জন্য নাকি পুরুষেরাও আবেদন করতে পারবেন, সে বিষয়ে স্পষ্ট নির্দেশনা প্রয়োজন।

প্রার্থীরা আরও অভিযোগ করেন, ৪৫তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তিতে নবম গ্রেডের নন-ক্যাডার পদ উপজেলা/থানা নির্বাচন অফিসারের কোড নম্বর ৫৬০১ উল্লেখ করা হয়েছে। কিন্তু অনলাইনে আবেদন করার সময় এ পদের বিপরীতে কোড নম্বর দেখায় ৪৬০৫। আবার বিজ্ঞপ্তিতে ৪৬০৫ কোডটি ১০ম গ্রেডের লাইব্রেরিয়ান পদের ক্ষেত্রে উল্লেখ করা হয়েছে। কোনটি সঠিক সেটি বোঝা যাচ্ছে না।

এ বিষয়ে জানতে পিএসসিতে যোগাযোগ করলে বলা হয়, তাঁরা এই সমস্যা দেখছেন ও সমাধানের বিষয়ে পদক্ষেপ নিচ্ছেন।

৪৫তম বিসিএসে আবেদন করা যাবে ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। আবেদনের ফি ৭০০ টাকা। তবে কোটাধারীদের জন্য ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ১০০ টাকা। প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় ২০০ নম্বরের এমসিকিউ প্রশ্ন থাকবে এবং প্রতিটি শুদ্ধ উত্তরের জন্য ১ নম্বর ও ভুল উত্তর দিলে প্রতিটি ভুলের জন্য মোট প্রাপ্ত নম্বর থেকে ০.৫০ নম্বর করে কাটা যাবে।

৪৫তম বিসিএসে ২ হাজার ৩০৯ জন ক্যাডারের মধ্যে সবচেয়ে বেশি নিয়োগ হবে চিকিৎসায়। সহকারী ও ডেন্টাল সার্জন মিলিয়ে ৫৩৯ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। চিকিৎসার পর সবচেয়ে বেশি শিক্ষা ক্যাডারে নিয়োগ পাবেন ৪৩৭ জন। এ ছাড়া পুলিশে ৮০, কাস্টমসে ৫৪, প্রশাসনে ২৭৪ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। নন-ক্যাডারে নেওয়া হবে ১ হাজার ২২ জনকে।

admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *