বিআইএমে ষষ্ঠ থেকে ২০তম গ্রেডে চাকরির সুযোগ

বিআইএমে ষষ্ঠ থেকে ২০তম গ্রেডে চাকরির সুযোগ

শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্টের (বিআইএম) একাধিক পদে জনবল নিয়োগে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। এই প্রতিষ্ঠানে ১২ ক্যাটাগরির পদে ষষ্ঠ থেকে ২০তম গ্রেডে ২৪ জন কর্মী নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহী প্রার্থীদের সরাসরি বা রেজিস্টার্ড ডাকযোগে আবেদনপত্র পাঠাতে হবে।

  • ১. পদের নাম: ব্যবস্থাপনা উপদেষ্টা
    পদসংখ্যা: ১০
    যোগ্যতা: বাণিজ্য, ব্যবসা প্রশাসন, সমাজবিজ্ঞান বা বিজ্ঞানের সংশ্লিষ্ট শাখায় দ্বিতীয় শ্রেণি বা সমতুল্য গ্রেড পদ্ধতির স্নাতকোত্তর ডিগ্রি থাকতে হবে। শিক্ষাজীবনে কমপক্ষে দুটি প্রথম শ্রেণি থাকতে হবে। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রিধারীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। কোনো শিল্প বা বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে প্রাসঙ্গিক বিষয়ে কোনো দায়িত্বশীল পদে কমপক্ষে পাঁচ বছরের বাস্তব অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। কোনো প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে শিক্ষাদানের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।
    বয়স: অনূর্ধ্ব-৩২ বছর
    বেতন স্কেল: ৩৫,৫০০-৬৭,০১০ টাকা (গ্রেড-৬)
  • ২. পদের নাম: প্রোগ্রামার
    পদসংখ্যা:
    যোগ্যতা: বাণিজ্য, ব্যবসা প্রশাসন, সমাজবিজ্ঞান বা বিজ্ঞানের সংশ্লিষ্ট শাখায় দ্বিতীয় শ্রেণি বা সমতুল্য গ্রেড পদ্ধতির স্নাতকোত্তর ডিগ্রি থাকতে হবে। শিক্ষাজীবনে কমপক্ষে দুটি প্রথম শ্রেণি থাকতে হবে। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রিধারীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। কোনো শিল্প বা বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে প্রাসঙ্গিক বিষয়ে কোনো দায়িত্বশীল পদে কমপক্ষে পাঁচ বছরের বাস্তব অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। কোনো প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে শিক্ষাদানের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।
    বয়স: অনূর্ধ্ব-৩২ বছর
    বেতন স্কেল: ৩৫,৫০০-৬৭,০১০ টাকা (গ্রেড-৬)
  • ৩. পদের নাম: ঊর্ধ্বতন সম্পাদক
    পদসংখ্যা:
    যোগ্যতা: স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় কমপক্ষে দ্বিতীয় শ্রেণির স্নাতকোত্তর ডিগ্রিসহ সাংবাদিকতা বা প্রকাশনা ও জনসংযোগ কাজে ন্যূনতম পাঁচ বছরের অভিজ্ঞতা। বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় পারদর্শিতাসহ ফটোকম্পোজিং এবং কম্পিউটার ব্যবহারে অভিজ্ঞতাসম্পন্ন প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।
    বয়স: অনূর্ধ্ব-৩২ বছর
    বেতন স্কেল: ২৯,০০০-৬৩,৪১০ টাকা (গ্রেড-৭)
  • ৪. পদের নাম: সহযোগী ব্যবস্থাপনা উপদেষ্টা
    পদসংখ্যা:
    যোগ্যতা: বাণিজ্য, ব্যবসা প্রশাসন, সমাজবিজ্ঞান, পরিসংখ্যান বা কম্পিউটারবিজ্ঞানের সংশ্লিষ্ট শাখায় কমপক্ষে দ্বিতীয় শ্রেণির স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অথবা প্রকৌশলে সমমানের ডিগ্রি থাকতে হবে।
    বয়স: অনূর্ধ্ব-৩২ বছর
    বেতন স্কেল: ২২,০০০-৫৩,০৬০ টাকা (গ্রেড-৯)

  • ৫. পদের নাম: প্রধান সহকারী
    পদসংখ্যা:
    যোগ্যতা: দ্বিতীয় শ্রেণির স্নাতকসহ যেকোনো সরকারি বা আধা সরকারি প্রতিষ্ঠানে কমপক্ষে পাঁচ বছরের কাজের অভিজ্ঞতা।
    বয়স: অনূর্ধ্ব-৩০ বছর
    বেতন স্কেল: ১২,৫০০-৩০,২৩০ টাকা (গ্রেড-১১)
    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে শারীরিক প্রতিবন্ধী ও এতিমখানানিবাসী সব জেলার প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন।

  • ৬. পদের নাম: উচ্চমান সহকারী
    পদসংখ্যা:
    যোগ্যতা: দ্বিতীয় বিভাগ বা সমতুল্য গ্রেড পদ্ধতির এইচএসসি পাসসহ যেকোনো সরকারি বা আধা সরকারি প্রতিষ্ঠানে তিন বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
    বয়স: অনূর্ধ্ব-৩০ বছর
    বেতন স্কেল: ১২,২০০-২৪,৬৮০ টাকা (গ্রেড-১৪)
    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে শারীরিক প্রতিবন্ধী ও এতিমখানানিবাসী সব জেলার প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন।

  • ৭. পদের নাম: প্রজেক্টর অপারেটর
    পদসংখ্যা:
    যোগ্যতা: দ্বিতীয় বিভাগে এইচএসসি বা সমমান পাসসহ সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে পাঁচ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
    বয়স: অনূর্ধ্ব-৩০ বছর
    বেতন স্কেল: ১২,২০০-২৪,৬৮০ টাকা (গ্রেড-১৪)
    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে শারীরিক প্রতিবন্ধী ও এতিমখানানিবাসী সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।
  • ৮. পদের নাম: ইমাম
    পদসংখ্যা:
    যোগ্যতা: কমপক্ষে ফাজিল পাসসহ পবিত্র কোরআনে হাফেজকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।
    বয়স: অনূর্ধ্ব-৩০ বছর
    বেতন স্কেল: ১২,২০০-২৪,৬৮০ টাকা (গ্রেড-১৪)
    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে শারীরিক প্রতিবন্ধী ও এতিমখানানিবাসী সব জেলার প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন।

  • ৯. পদের নাম: ইলেকট্রিশিয়ান
    পদসংখ্যা:
    যোগ্যতা: কমপক্ষে অষ্টম শ্রেণি পাসসহ সরকার অনুমোদিত কোনো কারিগরি ইনস্টিটিউট থেকে ইলেকট্রিক যন্ত্রাদি সংরক্ষণ ও গৃহে বৈদ্যুতিক তার সংযোজনের কাজে এক বছরের ট্রেড সার্টিফিকেট কোর্সসহ তিন বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। অথবা অষ্টম শ্রেণি পাসসহ ইলেকট্রিশিয়ান ট্রেড কোর্স পাস এবং কমপক্ষে দুই বছরের বাস্তব অভিজ্ঞতা। প্রজেক্টর ও ডুপ্লিকেটিং মেশিন চালনায় দক্ষতা থাকতে হবে।
    বয়স: অনূর্ধ্ব-৩০ বছর
    বেতন স্কেল: ৯,৭০০-২৩,৪৯০ টাকা (গ্রেড-১৫)
    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে শারীরিক প্রতিবন্ধী ও এতিমখানানিবাসী সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

  • ১০. পদের নাম: বাবুর্চি (পাচক)
    পদসংখ্যা:
    যোগ্যতা: অষ্টম শ্রেণি পাস। বাংলাদেশি, চায়নিজ, ইংলিশ বাসন সাজানো ও বিভিন্ন রন্ধন ও মেনু তৈরির কাজে পাঁচ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
    বয়স: অনূর্ধ্ব-৩০ বছর
    বেতন স্কেল: ৮,৮০০-২১,৩১০ টাকা (গ্রেড-১৮)
    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে শারীরিক প্রতিবন্ধী ও এতিমখানানিবাসী সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

  • ১১. পদের নাম: মসালচি
    পদসংখ্যা:
    যোগ্যতা: অষ্টম শ্রেণি পাস। বিভিন্ন রান্নার জন্য মসলা পেষা ও কিচেনের অন্যান্য কাজে সহযোগিতা করার জন্য অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
    বয়স: অনূর্ধ্ব-৩০ বছর
    বেতন স্কেল: ৮,২৫০-২০,০১০ টাকা (গ্রেড-২০)
    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে শারীরিক প্রতিবন্ধী ও এতিমখানানিবাসী সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।
  • ১২. পদের নাম: নিরাপত্তা প্রহরী
    পদসংখ্যা:
    যোগ্যতা: এসএসসি পাস ও অবশ্যই শারীরিক যোগ্যতাসম্পন্ন হতে হবে। সামরিক বাহিনীর কর্মচারী, আনসার, বিডিআর ও পুলিশ বাহিনীর সাবেক সদস্যদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।
    বয়স: অনূর্ধ্ব-৩০ বছর
    বেতন স্কেল: ৮,২৫০-২০,০১০ টাকা (গ্রেড-২০)
    যেসব জেলার প্রার্থীদের আবেদনের প্রয়োজন নেই: গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, শেরপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর, কুড়িগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর ও বরগুনা। তবে শারীরিক প্রতিবন্ধী ও এতিমখানানিবাসী সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

বয়সসীমা
এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষার সনদের ভিত্তিতে প্রার্থীর বয়সসীমা নির্ধারিত হবে। ২০২০ সালের ২৫ মার্চ থেকে প্রার্থীর সর্বোচ্চ বয়সসীমা নির্ধারিত হবে।

আবেদন যেভাবে
আবেদনকারীকে অবশ্যই সাদা কাগজে লিখিত/টাইপকৃত দরখাস্ত সরাসরি বা রেজিস্টার্ড ডাকযোগে পাঠাতে হবে। আবেদনকৃত পদের নাম খামের ওপর স্পষ্টাক্ষরে লিখতে হবে। দরখাস্তে আবেদনকারীর নাম, পিতা/স্বামীর নাম, মাতার নাম, স্থায়ী ঠিকানা, বর্তমান ঠিকানা, জন্মতারিখ, জাতীয়তা, ধর্ম, বৈবাহিক অবস্থা, শিক্ষাগত যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা, প্রকাশনা (যদি থাকে) ইত্যাদি উল্লেখ করতে হবে

আবেদনপত্রের সঙ্গে জাতীয় পরিচয়পত্র অথবা জন্মনিবন্ধন সনদসহ অন্য সব সনদের সত্যায়িত কপি; স্থানীয় চেয়ারম্যান, পৌরসভার মেয়র বা সিটি করপোরেশনরে কাউন্সিলর কর্তৃক প্রদত্ত জাতীয়তার সনদ; প্রার্থীর আত্মীয় নন, এমন একজন প্রথম শ্রেণির গেজেটেড কর্মকর্তা কর্তৃক প্রদত্ত চারিত্রিক সনদ; প্রথম শ্রেণির গেজেটেড কর্মকর্তা কর্তৃক সত্যায়িত সদ্য তোলা চার কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি; প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা বা শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হলে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক ইস্যুকৃত যথাযথ সনদপত্রের সত্যায়িত কপি; প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের ক্ষেত্রে যথাযথ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক স্বাক্ষরিত প্রতিবন্ধী সনদের সত্যায়িত কপি; প্রার্থী ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠীভুক্ত হলে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসকের নিকট থেকে প্রাপ্ত সনদের কপি সংযুক্ত করতে হবে। আবেদনপত্রে অবশ্যই ই-মেইল ঠিকানা ও ফোন নম্বর উল্লেখ করতে হবে। বিস্তারিত তথ্য বিআইএমের ওয়েবসাইটে জানা যাবে।

আবেদন ফি
আবেদন ফি বাবদ ১ থেকে ৪ নম্বর পদের জন্য ৫০০ টাকা এবং ৫ থেকে ১২ নম্বর পদের জন্য ৩০০ টাকার পে-অর্ডার বা ব্যাংক ড্রাফট মহাপরিচালক, বিআইএম, ঢাকার অনুকূলে জমা দিতে হবে। পে-অর্ডার বা ব্যাংক ড্রাফটের রসিদ আবেদনপত্রের সঙ্গে সংযুক্ত করতে হবে।

আবেদনপত্র পাঠানোর ঠিকানা: মহাপরিচালক, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট, ৪ সোবহানবাগ, মিরপুর রোড, ঢাকা-১২০৭।

আবেদনের শেষ সময়: ২৬ জানুয়ারি ২০২৩।

admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *