নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের শীর্ষে ইউনিলিভার বাংলাদেশ: জরিপ

নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের শীর্ষে ইউনিলিভার বাংলাদেশ: জরিপ

ইউনিভার্সামের জরিপে সবচেয়ে পছন্দের নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে শীর্ষস্থান লাভ করেছে ইউনিলিভার বাংলাদেশ। দেশের স্নাতক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের ওপর এ জরিপ করে এ বৈশ্বিক কনসাল্টিং প্রতিষ্ঠানটি। ইউনিভার্সাম বিশ্বজুড়ে দুই হাজারের বেশি প্রতিষ্ঠানকে সেবা দেয় এবং সেগুলোর অনেকগুলো বিখ্যাত ‘ফরচুন ৫০০’ তালিকার অন্তর্ভুক্ত।

বুধবার (৭ ডিসেম্বর) প্রকাশিত ওই জরিপ অনুযায়ী, ইউনিলিভার বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের চূড়ান্ত বর্ষের শিক্ষার্থীর ভোটে ‘নম্বর ওয়ান এমপ্লয়ার অব চয়েস’ নির্বাচিত হয়েছে। জরিপে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীরা স্নাতক সম্পন্ন করেছেন অথবা শিগগির ডিগ্রি সম্পন্ন করে আগামী বছরের শুরুতে কর্মক্ষেত্রে যোগ দেবেন।

শিক্ষার্থীরা ইউনিলিভারের শীর্ষ কনজ্যুমার ব্র্যান্ডগুলোর সঙ্গে কাজের সুযোগ পেয়ে ও বাংলাদেশের বাজারে অবদান রাখতে পেরে প্রতিষ্ঠানটিকে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে স্থান দিয়েছেন। এ সুযোগ ও কোম্পানির সৃজনশীল কাজের পরিবেশ তাদের ক্যারিয়ারকে এগিয়ে নিতে অবদান রেখেছে, তাদের নেতৃত্বগুণ বিকশিত করেছে।

এ নিয়ে ইউনিলিভার বাংলাদেশ সব সেক্টরে ১১বারের মতো ‘নম্বর ওয়ান এমপ্লয়ার অব চয়েস’ নির্বাচিত হয়েছে। এ জরিপে বিজনেস গ্র্যাজুয়েটদের উচ্ছ্বাস ও তাদের অগ্রাধিকার গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। ইউনিলিভার শিক্ষার্থীদের শীর্ষস্থানীয় পছন্দনীয় ব্র্যান্ড হয়ে উঠার ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানে নারী গ্র্যাজুয়েটদের অংশগ্রহণ এবং সমতা, বৈচিত্র্যতা ও অন্তর্ভুক্তি অর্থাৎ ইডিঅ্যান্ডআই (ইকুয়িটি, ডাইভার্সিটি অ্যান্ড ইনক্লুশন) ইত্যাদি বিষয়ে টেকসই অবস্থান প্রাধান্য পেয়েছে।

তরুণদের উন্নয়ন ও কর্মসংস্থান ঘিরে ইউনিলিভারের বৈশ্বিক প্রতিশ্রুতির প্রতি গুরুত্বারোপ করে উল্লেখ করে ইউনিলিভার বাংলাদেশের (ইউবিএল) মানবসম্পদ বিভাগের পরিচালক সাকসী হান্ডা বলেন, অনেক বছর ধরে আমরা ‘লিগ অব ফিউচার লিডার্স’ হিসেবে ইন্ডাস্ট্রিতে নিজেদের শক্ত অবস্থান ধরে রেখেছি। আমরা আমাদের কর্মীদের বিভিন্ন সুযোগ দেওয়ার মাধ্যমে তাদের ত্বরিত নেতৃত্ব উন্নয়নে গুরুত্ব দিয়ে থাকি, যেন তারা ক্ষমতায়িত হতে পারে এবং নিজেদের সাফল্যের গণ্ডিও ছাড়িয়ে যেতে সক্ষম হয়।

তিনি বলেন, আমাদের সাবেক সহকর্মীরা তাদের যোগ্যতাগুণে এরই মধ্যে দেশে ও বিদেশে নেতৃত্বস্থানীয় পদে কাজ করে যাচ্ছেন। তরুণদের রোমাঞ্চকর ও অর্থবহ যেকোনো উদ্যোগে ভবিষ্যতেও আমরা পাশে থাকবো।

ইউনিলিভার বাংলাদেশ-এ নতুন গ্র্যাজুয়েটদের বিভিন্ন সেক্টরে ক্যারিয়ার গড়ার ও কাজের সুযোগ রয়েছে। এ সংক্রান্ত তথ্য পেতে আগ্রহী প্রার্থীরা কোম্পানির অফিসিয়াল ফেসবুকে সংযুক্ত থাকতে পারেন।

admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *